Categories
Education

Learn The Secret Art Of Speaking English

আপনি কি ইংরেজিতে কথা বলতে না পারার কারনে ইন্টারভিউ দিতে ভয় পাচ্ছেন? আপনার নিম্নমানের ইংলিশের কারণে আপনি কি আপনার ভবিষ্যতের বিষয়ে উদ্বিগ্ন? আপনার ইংরেজি ভাষা যথাযথ না হওয়ায় আপনি নিজেকে নিচু মনে করছেন? 

এখন থেকে আর আপনাকে আর কোনও উপহাসের মুখোমুখি হওয়ার দরকার পড়বে না। ইংরেজিতে নিখুঁত দক্ষতা আনার সহজ উপাই এবং সূত্রগুলি এখন এই বইটিতে উপলভ্য।

সাবলীলভাবে ইংরাজী ভাষায় কথা বলতে পাড়া যদি আপনার একটি স্বপ্ন হয়ে থাকে এবং আপনি যদি একটি সহজ বই পড়তে এবং বুঝতে পারেন, তবে আমরা আপনাকে রঞ্জন বর্মনের “Learn The Secret Art Of Speaking English” নামক সর্বাধিক দ্রুত বিক্রিত বইয়ের সাথে পরিচয় করাতে যাচ্ছি। সাবলীল ভাবে ইংরেজীতে কথা বলতে পারার এটি একটি  নিখুঁত শর্টকাট।

এই বইটিতে সহজ টিপস এবং কৌশল রয়েছে যা কোনও ব্যাকরণগত ত্রুটি ছাড়াই আপনাকে অনায়াসে ইংরেজী বলাতে সক্ষম এবং এই পদ্ধতিকে অনুসরণ করাও খুব সহজ।

এখন আপনি বিরক্তিকর ইংলিশ ক্লাসে বা কোন ইংরেজী প্রশিক্ষণ প্রোগ্রামে যেতে ভুলে যেতে পারেন কারন এখন আপনার ইংরেজিতে কথা বলার স্বপ্ন এই বইটি পূরণ করে দিবে।

লেখক, রঞ্জন বর্মণ তাঁর আট বছরের গবেষণা এই বইটি লেখার জন্য ব্যয় করেছেন। বইটি দাবি করছে যে পাঠক চার মাসের মধ্যে নিখুঁত ইংরেজী বলতে সক্ষম হবেন।

এটি একটি পরীক্ষিত সূত্র এবং এটি শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইংরেজিতে কথাবলার দক্ষতা নিয়ে আনবে এবং আপনি সেকেন্ডেরও কম সময়ে নিজের মনে ইংরেজিতে বাক্য অনুবাদ করতে পারবেন এবং বলতে পারবেন।

To know about the book Author follow the link http://blogrator.com/ranjan

আমরা ছোটবেলা থেকে স্কুলে ইংলিশ শিখে আসছি। ছোটবেলা থেকে কলেজ অবধি ইংলিশ বিষয়কে বাধ্যতামূলক করা সত্ত্বেও আজ আমরা ইংরেজি ভাষায় কথা বলতে পাড়ি না। তার কারণ হল স্কুল ও কলেজে আমাদের ইংরেজি ভাষার একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ চ্যাপ্টার শেখানো হয়না। সেই চ্যাপ্টারের ব্যাপারে বেশিরভাগ ইংলিশ শিক্ষক জানেন না যে সেই চ্যাপ্টারের কোন অস্তিত্ব আছে কিনা। কিন্তু সেই চ্যাপ্টারকে যদি ছোটবেলা থেকে আমাদের শিখানো হত তবে আমরা হাই স্কুলে যাবার আগেই ইংরেজিতে কথা বলতে পাড়তাম। ইংলিশে রিডিং পড়া, সাধারণ ইংরেজি শব্দের বাংলা অর্থ আমরা ছোটবেলাতেই শিখে যায়। হাই স্কুলে এসে আমারা ইংরেজি গ্রামারের ব্যাপারে ভালো করে জানতে পাড়ি। তা সত্ত্বেও শুধু মাত্র একটি চ্যাপ্টার আমাদের ইংরেজি বইয়ে না থাকার কারনে আমরা ইংরেজিতে কথা বলতে পাড়ি না। পরবর্তীকালে আমাদের ইংরেজি সেখার জন্য আলাদা করে ক্লাস নিতে হয় যখন আমরা জানতে পাড়ি যে এটা না পাড়লে আমরা জীবনে উন্নতি করতে পারব না।    

সেই চ্যাপ্টারটি কেন স্কুলে শেখানো হয়না সেটা আমার জানা নেই। এই বইটিতে আমি সেই চ্যাপ্টারটির ব্যাপারে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করতে যাচ্ছি।

চ্যাপ্টারটিকে যেহেতু এই বইটির মাধ্যমে আপনাকে আমি শেখাতে যাচ্ছি তাই আপনাকে এই চ্যাপ্টারটি একটু বড় বলে মনে হতে পাড়ে। এই চ্যাপ্টারটি শেখার সময় আপনাকে একটু একঘেয়েও লাগতে পাড়ে। কিন্তু আপনি যদি ধৈর্য না হাড়িয়ে এই বইটি সম্পূর্ণ করতে পারেন তবে দেখবেন আপনার ইংরেজিতে কথা বলাতে আর কোন বাধা থাকবে না।

আপনার হইত মনে পড়বে যে ছোটবেলা আমাদের নামতা শেখানো হয়েছিলো। নামতা পড়তেও আমাদের একঘেয়ে লাগলো কিন্তু সেটা না পড়লে আমরা আজ দ্রুত হিসাব নিকাশ করতে পাড়তাম না।   

আমরা যখন কোন বাংলা বাক্যকে ইংরেজিতে বলার চেষ্টা করি তখন আমাদের বেশকিছু সময় লেগে যায় সেটার ইংরেজি বার করতে। কখন হইত আমরা বুঝতেই পাড়িনা যে বাক্যটির ইংরেজি কি হবে। এইরকম সমস্যার সম্মুখীন আমাদের হতে হয় দুইটি কারণে।

১. আমরা বাংলা থেকে ইংরেজি করার বাক্যগুলির নামতা জানি না।

২. আমরা বাংলা থেকে ইংরেজি করার জন্য যে সঠিক বাক্যগুলির প্রয়োজন সেই বাক্যগুলি কি তা জানি না।  

এই বইটি ইংরেজি গ্রামার বা শব্দ ভাণ্ডারের ব্যাপারে নয়। কারণ সেই বিষয়গুলি আমরা স্কুলে পড়তে শিখে থাকি। তাছাড়া আপনার যদি মনে হয় যে আপনার ইংরেজি গ্রামার বা শব্দ ভাণ্ডারের ব্যাপারে জানা প্রয়োজন তবে আপনি এই বইটির পাশাপাশি ভালো ইংরেজি বই কিনে রাখতে পাড়েন।

অনেকে মনে করেন যে ইংরেজি গ্রামার ও শব্দ ভাণ্ডারের ব্যাপারে জ্ঞান কম থাকার কারণে আমরা ইংরেজি বলতে পাড়ি না। আপনি যদি এইরকমটা মনে করেন তবে এই ধারণাটি মন থেকে মুছে ফেলুন।

আমি আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি আপনি সেই সমস্ত শব্দের অর্থ জানেন যে শব্দ গুলি আপনার ইংরেজিতে কথা বলতে প্রয়োজন।

“I have been teaching students English speaking course since 2011. I have seen that most of the students have fear about English language. They don’t have self confidence about themselves. They think what people think about them if they make mistakes while speaking in English.”   

ওপরের এই ইংরেজি বাক্যগুলির মধ্যে আপনি ঠিক কোন ইংরেজি শব্দের মানে জানেন না। মনে রাখবেন আপনি হইত পুরো ব্যাকের মানে নাও জানতে পাড়েন কিন্তু আপনি যদি শব্দগুলিরও মানে না বুঝতে পাড়েন তবে এই বইটি আপনাকে কোন সাহায্য করতে পারবে না। সে ক্ষেত্রে আমি বলব আপনাকে আগে নিছু ক্লাসের ইংরেজি গ্রামার বই থেকে সাধারণ ইংরেজি শিখে নিতে হবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব।

বাকিদের ক্ষেত্রে বলি, আপনি কি শব্দগুলির মানে বুঝতে পারছেন? যদি পাড়েন তবে আপনি এই বইটি থেকে শিখে ইংরেজিতে কথা বলতে পারবেন। আর আপনি যদি সবগুলি লাইনের মানেও বুঝতে পারছেন তবে আপনার জন্য ইংরেজিতে কথা বলা আর সহজ।

এই বইটি থেকে আপনি কি কি শিখবেন?

১. বাংলা থেকে ইংরেজি করার জন্য কোন বাক্যগুলির প্রয়োজন।

২. বাংলা থেকে ইংরেজি করার যে নির্দিষ্ট বাক্যগুলি রয়েছে তাদের সাহায্যে কি করে যে কোন বাংলা ব্যাকের ইংরেজিতে রূপান্তরিত করা যায়। ৩. কি করে সেকেন্ডের কম সময়ে মনে মনে বাংলা ব্যাকের ইংরেজিতে রূপান্তর করা যায়।

Categories
Career & Education

The secret art of speaking English

Written by: Uma saraswathy

Are you afraid of appearing in an interview because of your poor English communication skills? Are you concerned about your future because of your low standard English? Are you not able to stand in front of an audience because you feel low with yourself as your English language is not proper? You will never need to face any more mockery and let downs.
Simple explanations and formulas to bring out the perfect proficiency in English is available now.

It is everyone’s dream to speak the English language fluently. Can you read and understand a simple book? If the answer is yes, then we introduce you to the fastest selling book named “Learn The Secret Art Of Speaking English” by Ranjan Burman. This is indeed the perfect shortcut to speak fluent English.

This book contains simple tips and tricks which are easy to follow and enable you to speak English fluently without any grammatical errors. Forget going to the boring spoken English classes or any training programs when you have an efficient book with you. There is nothing powerful than a book to deliver its ideas to people – just like the saying ” a pen is mightier than a sword”.

This book includes everything that a learning reader needs to know – starting from the basic level to the expert slab of the English language. The author, Ranjan Burman has spent his eight years of research in writing this book. Ranjan took utmost care in simplifying the concepts in the book so that any reader can find it understandable. The readers are getting an excellent opportunity to self assess and test their English proficiency skills through the book. Vocabulary words are written along with their pronunciations so the readers get to know the exact speaking way. All the advanced level concepts are explained in a simple method.

This is a well structured and systematic book to gain the ultimate command over the English language for any person – be it a professional or not. Only quick learning concepts are explained here. The book claims that the reader will be able to speak perfect English within four months when he implements all the concepts and knowledge explained. You can get many scripts for everyday English conversation. You will never feel ashamed to present your ideas anymore as you have the professional English trainer to help you out. This book is perfect for day to day communication. Once you practice the simple tips and tricks explained in the book, it will be very easy for you to communicate in English. This book covers all important corners of the English language that a person needs to know in order to speak the language in proficiency.

This book is available to you at Rs 100 only! Hurry, to get your copy as they are fast – selling! Place the order, download Your PDF copy of the book and get rid of the fear of speaking English ! You will never see a great value at a highly reasonable price other than this.